‘ঘ’ ইউনিটের পরীক্ষা পুনরায় নেয়ার দাবি ছাত্রলীগের

| - By

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ঘ’ ইউনিটের পরীক্ষা যাচাই-বাছাই সাপেক্ষে পুনরায় নেওয়ার দাবি জানিয়েছে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রলীগ। আজ মঙ্গলবার বেলা বারোটার দিকে এই দাবিসহ চারদফা দাবিতে তারা উপাচার্য অধ্যাপক আখতারুজ্জামানকে স্মারকলিপি প্রদান করেন। এসময় উপস্থিত ছিলেন প্রো-উপাচার্য (শিক্ষা) অধ্যাপক নাসরীন আহমাদ, প্রো-উপাচার্য (প্রশাসন)অধ্যাপক মুহাম্মদ সামাদ, প্রক্টর অধ্যাপক গোলাম রব্বানী।

স্মারক প্রদান অনুষ্ঠানে ছাত্রলীগের পক্ষে লিখিত বক্তব্য পাঠ করেন সংগঠনটির ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় সভাপতি সনজিত চন্দ্র দাস। এসময় কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগের সভাপতি রেজওয়ানুল হক চৌধুরী শোভন, ছাত্রলীগের ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় সাধারণ সম্পাদক সাদ্দাম হোসেনসহ সংগঠনটির বিভিন্ন ইউনিটের নেতাকর্মীরা উপস্থিত ছিলেন।

ছাত্রলীগের চার দফা দাবি হলো— যাচাই-বাছাই সাপেক্ষে পুনরায় ভর্তি পরীক্ষা নেওয়া অথবা উত্তীর্ণ শিক্ষার্থীদের নিয়ে বিশেষ ভর্তি পরীক্ষার মাধ্যমে ‘ঘ’ ইউনিটের ভর্তি পরীক্ষার বিষয়ে সুস্পষ্ট প্রশাসনিক সিদ্ধান্তে আসা; ডিজিটাল জালিয়াতি, প্রশ্নফাঁস বা যেকোনো ধরনের অসাদুপায় অবলম্বনকারীর বিরুদ্ধে সর্বোচ্চ প্রশাসনিক ও আইনি ব্যবস্থা নেওয়া; সুস্পষ্ট তথ্য-প্রমাণ সাপেক্ষে জালিয়াতি, প্রশ্নফাঁস বা অসাদুপায় উপায়ের মাধ্যমে ভর্তি হওয়া শিক্ষার্থীর ছাত্রত্ব বাতিল ও আইনি ব্যবস্থা নেওয়া; আধুনিক, যুগোপযোগী ও মানসম্মত ভর্তি পরীক্ষার স্বার্থে শিক্ষাবিদ, বিশেষজ্ঞ, সিনেট, সিন্ডিকেট, অংশীজন এবং ছাত্র সংগঠনগুলোর প্রতিনিধিদের সমন্বয়ে পলিসি ডিবেটের মাধ্যমে ভর্তি পরীক্ষার পদ্ধতির সংস্কার করা।

স্মারক প্রদান অনুষ্ঠানে ছাত্রলীগের কেন্দ্রীয় সভাপতি রেজওয়ানুল হক চৌধুরী শোভন বলেন, মেধাবী শিক্ষার্থীরা ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে ভর্তির জন্য মনের ভেতর ইচ্ছা লালন করে পরিশ্রম করে। ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে যদি প্রশ্নপত্র ফাঁস হয় তাহলে সেটা জাতির জন্য লজ্জাজনক। আমরা চাই পরীক্ষাটি পুনর্বিবেচনা করা হোক।

এর আগে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রলীগ সভাপতি সনজিত চন্দ্র দাস, সাধারণ সম্পাদক সাদ্দাম হোসেনের নেতৃত্বে বিশ্ববিদ্যালয়ের সামাজিক বিজ্ঞান অনুষদ ভবন থেকে একটি মৌন মিছিল বের করা হয়। এতে সহস্রাধিক নেতাকর্মী অংশগ্রহণ করেন।

স্মারকলিপি গ্রহণের পর ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক আখতারুজ্জামান বলেন, আজ দুপুর সাড়ে বারোটায় ডিনস কমটির সভা রয়েছে। সেখানে ডিনসবৃন্দের মতামতের ভিত্তিতে সিদ্ধান্ত নেওয়া হবে।




Leave a reply